মুরগি পালনে লিটারের ভূমিকা

মুরগি পালনে লিটারের ভূমিকা

মুরগি পালনে লিটারের ভূমিকা খুবই গুরত্বপূর্ণ। আবদ্ধ অবস্থায় পোল্ট্রি পালনের ক্ষেত্রে লিটার পদ্ধতিতে মুরগির বিছানা হিসাবে লিটার ব্যবহার করা হয়। পোল্ট্রি লিটার অন্যান্য কাজেও ব্যবহার করা যায়।

মুরগি পালনে লিটারের ভূমিকা

ব্রয়লার মুরগির খাবারগুলোর অধিকাংশই লিটার অথবা ডিপ লটার পদ্ধতিতে পরিচালিত হয়। মুরগি সবসময় লিটারের উপর অবস্থান করে, খাদ্য ও পানি গ্রহণ করে এবং বেড়ে ওঠে। মুরগি লিটারের উপর প্রচুর মল-মুত্র ত্যাগ করে যা থেকে প্রচুর এমোনিয়া গ্যাস তৈরি হয়। এই এমোনিয়া গ্যাস মুরগির বিভিন্ন রোগ সৃষ্টির অন্যতম কারণ।

লিটার এক দিকে যেমন পোল্ট্রি উৎপাদনে সহায়তা করে ঠিক তেমনি সঠিকভাবে লিটারের যত্ন না নিলে এ থেকে বিভিন্ন রােগের সৃষ্টি হতে পারে। তাই লিটার সম্পর্কে সম্যক জ্ঞান থাকা প্রয়ােজন।

মুরগি পালনে লিটারের ভূমিকা

পশুপাখির বিছানাকেই ইংরেজিতে লিটার (Liter) বলে অর্থাৎ লিটার বলতে পোল্ট্রির ঘরের শয্যা হিসেবে ব্যবহৃত নানাবিধ বস্তুকেই বােঝায়। এক কথায় বাসস্থান আরামদায়ক করার জন্য মুরগির ঘরে যে বিছানা ব্যবহার করা হয় তাকে লিটার বলে।

যে সকল বস্তু লিটার হিসেবে ব্যবহৃত হয়

মুরগির ঘরে লিটার বা বিছানা হিসেবে ব্যবহারের জন্য বিভিন্ন দ্রব্যাদি ব্যবহৃত হয়ে থাকে। যথা-

  • ধানের তুষ
  • কাঠের গুঁড়া
  • খড়ের ছােট টুকরা
  • আখের ছােবড়া
  • বালি
  • নারিকেলের ছােবড়া

মুরগির ঘরে লিটার স্থাপনের কৌশল :

  • মুরগি ঘরে ওঠানাের ১ দিন পূর্বে লিটার দ্রব্য স্থাপন করতে হবে।
  • লিটার বিছানাের পূর্বে ভালােভাবে ঘরের মেঝে শুকাতে হবে।
  • লিটার অবশ্যই নরম ও আরামদায়ক হতে হবে।
  • লিটার ভেজা থাকলে রােদে শুকিয়ে ১০ % আর্দ্রতায় আনতে হবে। কারণ বেশি আর্দ্র হলে অ্যামােনিয়া গ্যাস উৎপন্ন হয়।
  • লিটার হাতের মুঠোর মধ্যে নিয়ে খুব জোরে চাপ দিলে যদি জমাট না বাঁধে বা ঝরে না যায় তাহলে লিটারের অবস্থা ভালাে হিসাবে ধরে নিতে হবে।
  • শুকনা লিটার ব্যবহারের পূর্বে জীবাণুমুক্ত করে ঘরের মেঝেতে লিটার বিছিয়ে রাখতে হবে।
  • বিছানা বা লিটার যাতে বৃষ্টির ছাপে ভিজে না যায় তার ব্যবস্থা করতে হবে।

মুরগির ঘরে লিটার ব্যবস্থাপনা

  • লিটার যাতে মলমূত্রাদি বা খাবার পানির মাধ্যমে ভিজে না যায় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।
  • লিটারের আর্দ্রতা বৃদ্ধির ফলে ছত্রাক যাতে জন্মাতে না পারে সেজন্য লিটার আচড়া ভালােভাবে ওলট পালট করে দিতে হবে।

দুই মাস পর লিটারের কার্যকারিতা শুরু হয়। এ সময়ের লিটারকে বিল্টআপ লিটার বলে। দুই মাস পর থেকে মুরগি নিজেরাই লিটার উল্টেপাল্টে নেয় বলে এই সময় মাসে একবার পরিচর্যা করতে হয়।

দুই মাস পর লিটারের মধ্যে প্রতি ১০০ মুরগির জন্য ২২৫ গ্রাম কাঁকর ছড়িয়ে দিতে হয়। আর্দ্রতা কম থাকলে পানি স্প্রে করতে হবে। লিটার ভিজে গেলে এর আর্দ্রতা কমানাের জন্য ঘরের মধ্যে বাতাসের প্রবাহ বাড়াতে হয়। এতে কাজ না হলে পুরােনাে লিটারে সাথে নতুন শুকনা লিটার মেশাতে হয় বা ভিজা লিটার ফেলে দিয়ে নতুন লিটার দিতে হবে।

লিটারের আর্দ্রতা দূর করার জন্য মাঝে মাঝে সুপার ফসফেট প্রতি ১ ঘন মিটারের জন্য ২২৫ গ্রাম হিসাবে মেশাতে হবে। লিটার কেক হলে ভেঙে দিতে হবে।

পুরু বিছানা যাতে জমাট না বাঁধে সে জন্য তাতে শুষ্ক চুন (১০ বর্গ মিটারে ৭-১০ কেজি চুন) সমানভাবে ছড়িয়ে দিয়ে বিছানা নেড়ে মিশিয়ে দিতে হবে।

ব্যবহার শেষে লিটার পুনরায় ব্যবহার করতে চাইলে প্রতি ১ ঘন মিটার লিটারে ১ কেজি চুনের গুঁড়া মিশিয়ে ১ সপ্তাহ স্তুপ করে রাখলে পরিশুদ্ধ হয় এবং পরবর্তীতে এই লিটার ব্যবহার করা যায়।

মুরগির পালে যদি রােগ-ব্যাধি না থাকে তবে তাদের ব্যবহৃত লিটার পুনরায় ব্যবহার করা যেতে পারে। তবে পুরােনাে লিটার ব্যবহার না করাই উত্তম। সংক্রামক রােগে আক্রান্ত পালের ব্যবহৃত লিটার পুড়িয়ে ফেলতে হয়।

ডিপ লিটার পদ্ধতি কি?

ডিম উৎপাদনের জন্য যেসকল মুরগি পালন করা হয়, এদের মেঝেতে ডিপ লিটার পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়। ডিপ লিটার পদ্ধতিতে ৪ থেকে ৫ ইঞ্চি পুরু করে লিটার বিছাতে হবে। এবং নিয়মিত উল্টেপাল্টে দিতে হবে। সাধারণত বছর শেষে একবার লিটার পালটিয়ে দেয়া হয়।

যে সকল কাজে মুরগির লিটার ব্যবহার করা যায়

প্রতিটি বয়স্ক মুরগি দৈনিক গড়ে ১১৩-১২০ গ্রাম বিষ্ঠা ত্যাগ করে থাকে যার মধ্যে ২২-২৫ গ্রাম শুদ্ধ বস্তু থাকে। এই ২২-২৫ গ্রাম দৈনিক লিটারের সাথে সংযুক্ত হয়। এ ছাড়া লিটার পরিচর্যার সময় চুন ও সুপার ফসফেট লিটারের মধ্যে মেশানাে হয়। বিভিন্ন পােকা, ছত্রাক, রােগজীবাণু লিটারের মধ্যে জন্মে, যা লিটারের গাজন প্রক্রিয়ায় মারা যেয়ে লিটারের গুণাগুণ বৃদ্ধি করে।

এই লিটার বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করা হয়, যথা

  1. জৈব সার হিসাবে
  2. মাছের খাদ্যে হিসেবে
  3. বায়ােগ্যাস হিসাবে
  4. হাঁস-মুরগি ও গবাদিপশুর খাদ্য হিসেবে
  5. পুনরায় ব্যবহার

আরো পড়ুন: দেশি মুরগির ডিম উৎপাদন ক্ষমতা


Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *