মালয় জাতের মুরগি

মালয় জাতের মুরগি

মালয় জাতের মুরগি প্রচন্ড রোগ প্রতিরোধী। মালয় জাতের মুরগি বাংলাদেশের চট্টগ্রাম জেলায় এবং মালয়েশিয়া উপদ্বীপে পাওয়া যায় বলেই এই জাতটির এমন নাম দেওয়া হয়েছে। চাটগাঁয়ে বা মালয় জাতের মুরগি উত্তর ভারত ও ইন্দোনেশিয়ার বিভিন্ন অঞ্চলেও দেখা যায়।

মালয় জাতের মুরগি

মালয় জাতের মুরগি

মালয় মুরগি একটি শক্ত-পালকযুক্ত শক্তিশালী মুরগির জাত। প্রায় অসিল মুরগির মত দেখতে এই জাতের মুরগি দিয়েও মোরগ-লড়াই করানো হয়। এটি সবচেয়ে উঁচুতে গলা দিতে পারে। মালয় মুরগি দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়াতে প্রাপ্ত সবচেয়ে প্রাচীন মুরগি বলে বিবেচিত।

ভারত পাকিস্তান, বাংলাদেশ, আফগানস্তান, মালয়েশিয়া প্রভৃতি দেশে চাটগাঁয়ে বা মালয় জাতের মুরগি এখনো পালন করা হয়।

মালয় মুরগির বৈশিষ্ট্যাবলী :

  • এদের চামড়া হলুদ ও ডিমের খোসা বাদামি।
  • এদের মাথায় ছোট আকারের লালচে ঝুঁটি আছে।
  • এদের গলা ও ঠোঁট লম্বা এবং মাথা ছোট।
  • এদের পালকের রং সাধারণত লাল হয়।
  • এবং লেজের পালক লাল কালোর মিশ্রণ বা সোনালি এবং হালকা হলুদ প্রকৃতির।
  • এদের পা লম্বা, মোটা ও ভারী হয়।
  • এরা দেখতে খুব লম্বা ও আকর্ষনীয়।
  • এরা মাংসের জন্যও ভালো।
  • মোরগের ওজন 4-4.5 কেজি ও মুরগির ওজন 3-4 কেজি।

মালয় জাতের মুরগি মালেশিয়ান জাত হলেও প্রাচীন কাল থেকে বাংলাদেশের চট্টগ্রামে এদের পাওয়া যায়। চট্টগ্রামের চাটগাঁয়ে এই জাতের মুরগি প্রথম পালন শুরু হয় বলে এদের কে চাটগাঁয়ে মুরগি বলা হয়। এই মুরগি ভারত ও ইন্দোনেশিয়ার বিভিন্ন অঞ্চলেও পাওযা যায। দেশি মুরগি পালন হিসাবে চাটগাঁয়ে বা মালয় জাতের মুরগি অসাধারণ।

আরো পড়ুন: গলাছিলা মুরগি


Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *