গবাদিপশুর বাজার

বর্তমান গবাদিপশুর বাজার এবং সুস্থ গরু নির্বাচন করার কিছু টিপস

বর্তমান গবাদিপশুর বাজার এবং সুস্থ গরু নির্বাচন করার কিছু টিপস। বাংলাদেশ একটি গবাদি পশুসমৃদ্ধ দেশ। আর এই গবাদি পশুর মধ্যে গরু সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়। বর্তমান অনেকেই আছেন যারা গরু কিনতে চাচ্ছেন কোরবানির জন্য, এবং ফার্ম করার জন্য অথবা ব্যক্তিগত ভাবে পালনের জন্য। তবে কারণ যেটাই হোক, গরু কেনার আগে জেনে নিতে হবে গরু নির্বাচন করার ক্ষেত্রে কিছু টিপস যেটা আপনার গরু কেনার সময় কাজে দিবে।

গবাদিপশুর বাজার এবং সুস্থ গরু নির্বাচন করার কিছু টিপস

নিচে গবাদিপশুর বাজার এবং সুস্থ গরু নির্বাচন করার কিছু টিপস তুলে ধরা হলোঃ

১. যদি উদ্দেশ্য কোরবানির জন্য হয় তবে অবশ্যই লক্ষ্য করতে হবে সুন্নাহ মোতাবেক গরু যেন কমপক্ষে ২টি দাঁত বিশিষ্ট হয়।

২.যদি আপনি ফার্ম করতে চান অবশ্যই একজন পশু ডাক্তার কে সাথে নিয়ে অথবা তার পরামর্শ অনুযায়ী গরু নির্বাচন করতে হবে। কেননা আপনি যে গরুটি কিনবেন সেটা কোনো ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত কি না অথবা শারীরিক কোনো অক্ষমতা আছে কি না সেটি যাচাই করা অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ একটা দিক ।

৩. গরুর নাকের ওপরটা যদি কিছু ভেজা হয় তাহলে এটি সুস্থ গরুর লক্ষণ। আর যদি গরুর মুখের সামনে খাবার ধরেন এবং গরু যদি জিহ্বা দিয়ে টেনে নেয় তাহলেও গরুটি সুস্থ বলে ধরে নেয়া যায়। মনে রাখবেন অসুস্থ গরু কিছুটা নির্জীব এবং সহজে খাবার খেতে চাইবে না এটা অবশ্যই দেখে নিবেন গরু কেনার আগে ।

৪. অনেকের ধারনা মোটা গরু মানেই সুস্থ এবং অধিক মাংস সম্পন্ন। কিছু অসাধু ব্যবসায়ী বেশি লাভের আশায় কোরবানির পশুকে ওষুধ দিয়ে মোটাতাজা করে হাটে বিক্রি করতে নিয়ে আসে। লক্ষ করবেন এইসকল গরু অন্যসব গরুর চাইতে বেশ মোটা থাকে এবং চামড়া টানটান হয়।

৫. সুস্থ গরু সবসময় নাড়াচড়া করবে যেমন কান দিয়ে মাছি তাড়াবে সাথে লেজ নাড়াবে। অপরদিকে মোটাতাজার ওষুধ খাওয়ালে গরুর স্বাভাবিক নড়াচড়া কমে যাবে ফলে ঝিম মেরে থাকবে। তাই এসকল গরু কেনা উচিত নয়।

৬. যদি গরুর কুঁজ মোটা হয় এবং টানটান থাকে তাহলে গরুটি সুস্থ ধরে নেয়া যেতে পারে।

৭. গরুর শিং ভাঙা, খুর ভাঙা, এছাড়ারা চামড়ায় ঘা আছে কি না সেটি অবশ্যই লক্ষ্য করতে হবে।

৮. গরুর ফ্লায়েন্ট জয়েন্ট বলে একটি জায়গা আছে যেটি তিন কোনা গর্তের মত সেই স্থানটি ফোলা থাকলে গরুটিকে ওষুধ খাওয়ানো হয়েছে বলে ধরে নেয়া যায়।

৯. দেশি গরুর দাম তুলনামূলকভাবে এখনও কম। বাংলাদেশে গরুর দাম ৭০,০০০ হাজার টাকার মধ্যে যেগুলো দেখতে মোটামুটি হলেও প্রাকৃতিক খাদ্য এবং ভালো যত্নে বড় করা হয়।   

বর্তমান গবাদিপশুর বাজার যাইহোক উপরের এই সকল লক্ষণ গুলো ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করে আপনার কোরবানীর গরু, ফার্মের জন্য গরু, ব্যক্তিগত লালন পালন এর জন্য অথবা অন্যান্য সকল কাজের জন্য গরু নির্বাচন করুন, এতে আপনি লাভবান হবেন।

আরো পড়ুনঃ কবুতরের বাচ্চার দাম কমেছে, বেড়েছে কদর


Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *